মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

শিবালয় উপজেলার ঐতিহ্য

পদ্মা-যমুনা বিধৗত শিবালয় উপজেলাটি মানিকগঞ্জ জেলার সর্ব পশ্চিমে ৭টি ইউনিয়ন দ্বারা গঠিত। জনসংখ্যার দিক থেকে এটি জেলার দ্বিতীয় কাষুদ্রতম উপজেলা। ছায়া ঢাকা পাখি ডাকা সবুজ শ্যামল এই উপজেলাতে আরিচা এবং পাটুরিয়া ঘাট অবস্থিত।এ ঘাট দুটি রাজধনী ঢাকার সাথে দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের যোগাযোগের সেতু বন্ধন হিসেবে কাজ করে আসছে দীর্ঘ দিন ধরে।

 

          অত্র উপজেলার মোট আয়তন ১৯৯.০৭ বর্গ কিলোমিটার যা ২৩.৪৪’ও ২৩.৫৫’উত্তর অক্ষাংশ (latitudes) এবং ৮৯.৪২’ও ৮৯.৫৬’দ্রাঘিমাংশ (longitudes) এর মধ্যে অবস্থিত।

 

          এই উপজেলাতেই আমাদের জাতীয় কবি কাজী নজরূল ইসলামের পত্নী প্রমীলার বাবার বাড়ী অবস্থিত। শিবালয়বাসী কবি নজরুলের পদধূলিতে হয়েছে ধন্য। এখানেই তিনি রচনা করেছেন- “আমার কোন কূলে আজ ভিরলো তরী, এ কোন সোনার গাঁয়।” আবার লিচু চোর এর মত বিখ্যাত ছড়াও তিনি এখানে বসেই রচনা করেছেন।

 

          এ উপজেলাতে অবস্থিত তেওতার বিখ্যাত জমিদারবাড়ী। এখানকার কাঁচা মরিচ অত্যন্ত বিখ্যাত। বরংগাইল হাটের মরিচ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে রপ্তানি করে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা অর্জিত হয়।

 

 

 

----------------------------------------------

ছবি



Share with :

Facebook Twitter